1. [email protected] : Joyanta Goswami : Joyanta Goswami
  2. [email protected] : Developer :
  3. [email protected] : News Point : News Point
শুক্রবার, ২২ অক্টোবর ২০২১, ১১:৩৩ পূর্বাহ্ন

নিউজ পয়েন্ট সিলেট

শনিবার, ১০ এপ্রিল, ২০২১

সিলেট-০৩ আসনে আওয়ামী লীগের মনোনয়ন প্রত্যাশী হিসেবে জোর আলোচনায় কফিল চৌধুরী


নিউজ পয়েন্ট ডেস্কঃ সিলেটের দক্ষিণ সুরমা,ফেঞ্চুগঞ্জ এবং বালাগঞ্জ উপজেলা নিয়ে গঠিত হয়েছে সিলেট-৩ আসন। এই আসনের জনপ্রতিনিধি ছিলেন,সিলেটের মাটি ও মানুষের নেতা মাহমুদ উস সামাদ চৌধুরী কয়েছ। তিনি ছিলেন,সিলেট জেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি ও সিলেট-০৩ আসনের তিন বারের নির্বাচিত জনপ্রিয় সংসদ সদস্য।কিন্তু বৈশ্বিক করোনা মহামারীতে এ আসনের সংসদ সদস্যের মৃত্যুর পর আসনটি শূণ্য ঘোষণা করা হয়েছে।

ইতোমধ্যে আগামীর উপনির্বাচনকে সামনে রেখে ক্ষমতাসীন দলের মনোনয়ন প্রত্যাশীরা তৎপর হয়ে উঠেছেন। এই আসনের দিকে নজর এখন সবার মাঝে। সুতারাং এই যখন প্রসঙ্গ তখন, এ আসনের নৌকার কান্ডারী কে হবেন? সেই আলোচনা এখন সর্বত্র। আওয়ামী লীগের অঙ্গ সংগঠন ছাড়াও বিভিন্ন দল ও সাধারণ মানুষ বেশ আগ্রহ নিয়ে আছেন আসনটির ব্যাপারে।

ইতিমধ্যে এ আসনে অনেকেই আওয়ামী লীগের মনোনয়ন প্রত্যাশা করছেন।
এরইমধ্যে এই আসনটিতে আওয়ামী লীগের প্রার্থী হিসেবে জোর আলোচনায় রয়েছেন
আলহাজ্ব কফিল আহমদ চৌধুরী।

দীর্ঘদিন থেকে আওয়ামী লীগের রাজনীতির সাথে জড়িত থাকা আলহাজ্ব কফিল আহমদ চৌধুরী দলের দুর্দিনের ছিলেন আওয়ামী লীগের রাজনীতিতে অটল। তাছাড়া প্রয়াত এম.পি সামাদ চৌধুরীর খুবই ঘনিষ্ঠভাজন হওয়ায় দলীয় নেতাকর্মীরা উনাকে প্রার্থী হিসেবে জানতে পেরে উচ্ছ্বাসিত। এলাকার জনগণ জানিয়েছে সিলেট ৩ আসন জুড়ে আলহাজ্ব কফিল আহমদ চৌধুরীর নাম সর্বত্রই শোনা যাচ্ছে।

আলহাজ্ব কফিল আহমদ চৌধুরী জানান, আমি ১৯৯১, ১৯৯৬, ২০০১, ও ২০০৮ সালে দলীয় নমিনেশন চেয়ে আসছিলাম এবং একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনেও আমি সিলেট ৩ আসনে প্রার্থী হওয়ার জন্য জনগণ আমাকে অনুরোধ করেছিলো। কিন্তু আমাদের প্রয়াত নেতা মাহমুদ উস সামাদ চৌধুররী প্রতি সম্মান প্রদর্শন করে আমি প্রার্থী হই নাই। সময় যেহেতু এসেছে, তাই আমি জনগণ কে সম্মান দেখাতে প্রার্থী হতে চাই।

উল্লেখ্য, আওয়ামী পরিবারের সদস্য কফিল আহমদ চৌধুরীর রাজনৈতিক হাতেখড়ি তার পরিবার থেকেই। ভাষা সৈনিক বৃহত্তর সিলেট আওয়ামী লীগের প্রতিষ্টাতাদের অন্যতম বীর মুক্তিযোদ্ধা, মুক্তিযুদ্ধের অন্যতম সংগঠক, জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ঘনিষ্ঠ সহচর, কৃষকলীগের কেন্দ্রীয় কমিটির সাবেক সহ-সভাপতি, সিলেট জেলা কৃষকলীগের সভাপতি, তৎকালীন সিলেট জেলা আওয়ামী লীগের নীতিনির্ধারকদের অন্যতম মরহুম নজির আহমদ চৌধুরীর সুযোগ্য সন্তান আলহাজ্ব কফিল আহমদ চৌধুরী সিলেট জেলা আওয়ামী লীগের সাবেক ত্রাণ ও সমাজ কল্যাণ সম্পাদক ছিলেন। এছাড়াও তিনি বৃহত্তর সদর উপজেলা আওয়ামী লীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক এবং সিলেট জেলা রেড ক্রিসেন্ট সোসাইটির চার বারের সাবেক সেক্রেটারি, নবারুন উচ্চ বিদ্যালয় ও কলেজের সাবেক চার ট্রাম সভাপতি, চর মোহাম্মদপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সাবেক দশ ট্রাম সভাপতি ছিলেন। তিনি ১৯৭৫ সালের পর যে কয়জন নেতা রাজপথে বিশেষ ভূমিকা রেখেছিলেন তাদের মধ্যে অন্যতম বার বার কারাবরণকারি নেতা।

নিউজ পয়েন্ট সিলেটের সাথে আলাপকালে তিনি, দক্ষিণ সুরমা , বালাগন্জ ও ফেঞ্চুগঞ্জ তথা সিলেট-৩ নির্বাচনি এলাকায় উন্নয়ন অগ্রগতির ধারা অব্যাহত রাখতে জনকল্যাণে নিবেদিতপ্রাণ একজন পরিক্ষীত , ত্যাগী, নির্ভরযোগ্য , বিশ্বস্হ , দায়িত্ববান , প্রতিশ্রুতিশীল, অভিজ্ঞ ,কঠোর পরিশ্রমী সংগঠক ও কর্মীবান্ধব হয়ে সকলের পাশে থাকার প্রত্যাশাকে যথার্থই মনে করে সকলের সমর্থন, ও দোয়া কামনা করেন তিনি।

আপনার মতামত দিন
এই বিভাগের আরও খবর

সিলেটের সর্বশেষ
© All rights reserved 2020 © newspointsylhet