1. [email protected] : Joyanta Goswami : Joyanta Goswami
  2. [email protected] : Developer :
  3. [email protected] : News Point : News Point
সোমবার, ১৭ জানুয়ারী ২০২২, ০১:৫৮ পূর্বাহ্ন

নিউজ পয়েন্ট সিলেট

মঙ্গলবার, ৮ ডিসেম্বর, ২০২০

যুব ফোরামের উদ্যোগে পশ্চিমভাগে চলছে ব্যাপক উন্নয়ন কর্মযজ্ঞ


নিউজ পয়েন্ট প্রতিবেদকঃ দক্ষিণ সুরমা উপজেলার লালাবাজার ইউনিয়নের পশ্চিমভাগ যুব ফোরামের উদ্যোগে গ্রামবাসীর সহযোগিতায় বর্তমানে গ্রামে ব্যাপক উন্নয়ন কর্মযজ্ঞ পরিচালিত হচ্ছে।

ইতিমধ্যে গ্রামের তিনটি প্রধান রাস্তাকে চিহ্নিত করে এসব রাস্তার সীমানা নির্ধারণ, তীর ভরাট শেষ করে রাস্তাকে প্রসস্ত করে তাতে মাটি ভরাটের কাজ এগিয়ে চলছে। গত দুই মাস আগ থেকে গ্রামে এসব কার্যক্রম শুরু করেন গ্রামের উন্নয়নে নিবেদিত সামাজিক সংগঠন পশ্চিমভাগ যুব ফোরাম।

গ্রামের উন্নয়নের জন্য দেশে বিদেশে পৃথক পৃথক কমিটি গঠন করে ফান্ড সংগ্রহে এগিয়ে আসেন ফোরামের নেতৃবৃন্দ। ফোরামের সভাপতি যুক্তরাজ্য প্রবাসী মাসুক আহমদ ও সাংগঠনিক সম্পাদক কাতার প্রবাসী মোঃ সাহেল আহমদ এর নেতৃত্বে পৃথিবীর বিভিন্ন দেশে বসবাসরত গ্রামের বাসিন্দাদের কাছ থেকে অর্থ সংগ্রহের কাজ শুরু হয়।

বাংলাদেশে অবস্থানরত ফোরামের সাধারণ সম্পাদক ময়নুল ইসলাম, সমাজকল্যাণ সম্পাদক, বাহরাইন প্রবাসী কামাল আহমদসহ বাংলাদেশ কমিটির নেতৃবৃন্দের প্রত্যক্ষ তর্তাবধানে শুরু হয় গ্রামের এসব উন্নয়ন কর্মকান্ড। গঠন করা হয় প্রায় ৪০লক্ষ টাকার একটি অনুদান তহবিল। যার মধ্যে প্রায় ৭লক্ষাধিক টাকায় রাস্তার জন্য কেনা হয়েছে ১লক্ষ ইট। প্রবাসীদের প্রেরিত অর্থ এবং গ্রামবাসীর স্বেচ্ছাশ্রমের মাধ্যমে ইতিমধ্যে গ্রামের প্রধান দুটি রাস্তায় মাটি ভরাট শেষ করে গ্রামের একমাত্র প্রাথমিক বিদ্যালয় সংলগ্ন রাস্তায় মাটি ভরাট সম্পন্ন হয়েছে।

গ্রামবাসী জানান, দক্ষিণ সুরমা উপজেলা সদর থেকে প্রায় ২৫ কিলোমিটার দূরে লালাবাজার ইউনিয়নের পশ্চিমভাগ একটি অবহেলিত গ্রাম। দীর্ঘদিন যাবত অবহেলা, বঞ্চনার শিকার গ্রামের উন্নয়নে এগিয়ে এসেছেন সম্মিলিতভাবে গ্রামের যুবসমাজ। গ্রামের রাস্তাঘাট, শিক্ষা প্রতিষ্ঠান, কমিউনিটি ক্লিনিক প্রতিষ্ঠাসহ আর্থসামাজিক অবস্থার উন্নয়নে গ্রহণ করেছেন কতিপয় বাস্তব সম্মত উদ্যোগ। গ্রামের যোগাযোগের প্রধান তিনটি রাস্তাসহ মসজিদ, শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান ও সামাজিক সংগঠনসমূহের উন্নয়নে গ্রহণ ব্যাপক পরিকল্পনা। গ্রামের সমাজ সচেতন ব্যক্তিবর্গের সহযোগিতায় কর্মউদ্যোম যুবকদের নিয়ে গঠন করা হয় পশ্চিমভাগ যুব ফোরাম। গ্রামের রাস্তাঘাট সংস্কার, মেরামত, পরিস্কার পরিচ্ছন্নতা অভিযান, শিক্ষায় পৃষ্টপোষকতাসহ নানাবিধ মানবিক কার্যক্রম বাস্তবায়ন করে যুব ফোরাম ইতিমধ্যে গ্রামের সকলের প্রশংসা কুড়াতে সক্ষম হয়েছে।
আজিজুর রহমান ও আব্দুর রহিম জানান, ‘গ্রাম থেকে বের হবার একমাত্র রাস্তা খালপাড়-ঈদগাহ বাজার সড়ক। সারাদেশে বিভিন্ন রাস্তা ঘাট পাকা হলেও আমরা এমন দূর্ভাগা গ্রামবাসী, যাদের কপালে পাকা রাস্তা নেই। ধান-চালসহ বিভিন্ন কৃষিপণ্য ও মালামাল পরিবহনে আমাদের অসহনীয় দুর্ভোগ পোহাতে হয়। এছাড়া ছেলে মেয়েরা বর্ষা মৌসুমে হাঁটু পানি ভেঙ্গে দুই কিলোমিটার রাস্তা পাড়ি দিয়ে স্কুল-কলেজে যাওয়া আসা করে। গ্রামের কেউ অসুস্থ হলে তাকে কাঁধে করে হাসপাতালে নিয়ে যেতে হয়।

‘আমরা দীর্ঘ দিন ধরে স্থানীয় জনপ্রতিনিধিসহ বিভিন্ন জায়গায় ধর্ণা দিয়েও কেউ এগিয়ে আসেনি। বাধ্য হয়ে গ্রামবাসী মিলে টাকা তুলে নিজেরা শ্রম দিয়ে রাস্তা নির্মাণের কাজ শুরু করছি।”
পশ্চিমভাগ যুব ফোরামের প্রধান সমন্বয়কারী মোঃ মঈনুল ইসলাম তার পিতৃসম্পত্তি থেকে গ্রামের স্বাস্থ্য সেবার মানোন্নয়নের কথা বিবেচনা করে ৮শতক ভূমি গ্রামে কমিউনিটি ক্লিনিক স্থাপনের জন্য দান করবেন বলে ইতিমধ্যে তিনি ঘোষনা দিয়েছেন। গ্রামবাসীর পক্ষে লালাবাজার ইউ/পি চেয়ারম্যান পীর ফয়জুল হক ইকবাল স্বাক্ষরিত কমিউনিটি ক্লিনিক স্থাপনের আবেদন সরকারের বিভিন্ন দপ্তরে প্রেরণ করা হয়েছে।

গ্রামের সর্বস্তরের মানুষ যুব ফোরামের কার্যক্রমকে স্বাগত জানিয়ে সহযোগিতার হাত বাড়িয়ে দিয়েছেন। ফলে ফোরামকে নিয়ে গ্রামবাসী আশাবাদী হয়ে উঠেছে। ফোরামের সদস্য সহ গ্রামবাসী আজ বিশ্বাস করতে শুরু করেছেন নিশ্চয় গ্রামের উন্নয়ন সাধিত হবে।এজন্য যুব ফোরামকে সব ধরণের ভেদাভেদ ভুলে গিয়ে নিস্বার্থ ভাবে কাজ করতে হব্।ে মনে রাখতে হবে সকলের সম্মিলিত প্রচেষ্টায় পশ্চিমভাগ গ্রাম হয়ে উঠবে একটি আলোকিত ও উন্নত গ্রাম।

স্থানীয় ইউপি সদস্য সিরাজ আহমদ বলেন, গ্রামবাসীর চাহিদার কথা বিবেচনা করে ইতিমধ্যে তিনটি রাস্তা উন্নয়নের জন্য সংশ্লিষ্ট কতৃপক্ষ বরাবরে প্রেরণ করা হয়েছে। অচিরেই প্রকল্পগুলি অনুমোদিত হলে গ্রামের রাস্তাঘাটের ব্যাপক উন্নয়ন সাধিত হবে।
গ্রামবাসীর এ উদ্যোগকে স্বাগত জানিয়ে ৬নং লালাবাজার ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান পীর ফয়জুল হক ইকবাল বলেন, পশ্চিমভাগ যুব ফোরামের কার্যক্রম সত্যিই প্রশংসার দাবীদার। তাদের আবেদনের প্রেক্ষিতে ইতিমধ্যে গ্রামে একটি কমিউনিটি ক্লিনিক স্থাপনের প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ গ্রহণ করা হয়েছে। আর গ্রামবাসীর যোগাযোগের বৃহত মাধ্যম ঈদগাহ বাজার – খালপাড় সড়ক উন্নয়নে অচিরেই কার্যক্রম শুরু হবে।

আপনার মতামত দিন
এই বিভাগের আরও খবর

সিলেটের সর্বশেষ
© All rights reserved 2020 © newspointsylhet