1. [email protected] : Joyanta Goswami : Joyanta Goswami
  2. [email protected] : Developer :
  3. [email protected] : News Point : News Point
বৃহস্পতিবার, ২৪ জুন ২০২১, ০৯:০১ অপরাহ্ন

নিউজ পয়েন্ট সিলেট

বুধবার, ৩১ মার্চ, ২০২১

মেডিকেল পরীক্ষা: কেন্দ্রে ঢুকতে হবে ২ ঘণ্টা আগে


আগামী শুক্রবার (২ এপ্রিল) ২০২০-২১ শিক্ষাবর্ষের এমবিবিএস ভর্তি পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে। ভর্তিচ্ছু শিক্ষার্থীদের সকাল ৮টার মধ্যে পরীক্ষা কেন্দ্রে প্রবেশ করতে হবে। সকাল সাড়ে ৯টায় কেন্দ্রের প্রধান ফটক বন্ধ হয়ে যাবে। বুধবার (৩১ মার্চ) স্বাস্থ্য শিক্ষা অধিদপ্তর এ সংক্রান্ত বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করেছে।

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে, আগামী ২ এপ্রিল যথাযথ স্বাস্থ্যবিধি অনুসরণ করে ২০২০-২১ শিক্ষাবর্ষের মেডিকেল ভর্তি পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে। শিক্ষার্থীদের সুবিধার কথা বিবেচনা করে সকাল ৮টার মধ্যে তাদের পরীক্ষা কেন্দ্রে উপস্থিত হতে হবে। ৯টা ৩০ মিনিটে পরীক্ষা কেন্দ্রের প্রধান ফটক বন্ধ হয়ে যাবে। সাড়ে ৯টার পর কোনো শিক্ষার্থীকে পরীক্ষা কেন্দ্রে প্রবেশ করতে দেয়া হবে না।

এদিকে চলমান করোনা সংক্রমণের ঊর্ধ্বগতির মধ্যে ভর্তি পরীক্ষা পেছানোর দাবি করেছেন শিক্ষার্থীরা। পরীক্ষা পেছানোর দাবিতে বুধবার সকাল ১০টায় ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে মানববন্ধনও করেছেন ভর্তিচ্ছু শিক্ষার্থীরা।

মানববন্ধনে উপস্থিত মেডিকেল ভর্তিচ্ছু শিক্ষার্থী তাওসিব হাসনাইন তারন বলেন, আগামী ২ এপ্রিল বিতর্কিত, প্রশ্নবিদ্ধ মেডিকেল ভর্তি পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে। সার্বিক পরিস্থিতি বিবেচনা করে সকল পরীক্ষা স্থগিত করা হলেও মেডিকেল ভর্তি পরীক্ষা স্থগিত করা হচ্ছে না। একদিকে স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ই সাধারণ মানুষদের জনসমাগম করতে নিষেধ করছে; অপরদিকে তারাই আবার জনসমাগম করতে এত বড় একটা পাবলিক পরীক্ষার আয়োজন করতে যাচ্ছে। আমাদের কি তাহলে স্বাস্থ্য ঝুঁকি নেই।

তিনি বলেন, সম্প্রতি সরকার যে ১৮ দফা নির্দেশনা দিয়েছে, তা স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় নিজেরাই লঙ্ঘন করছেন। কেননা ১৮ দফার ‘ড’ নং দফায় স্পষ্ট উল্লেখ রয়েছে যে, করোনায় আক্রান্ত কিংবা করোনার লক্ষণযুক্ত ব্যক্তির আইসোলেশন নিশ্চিত করতে হবে এবং করোনায় আক্রান্ত ব্যক্তির সংস্পর্শে আসলে কোয়ারেন্টাইন নিশ্চিত করতে হবে। কিন্তু স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় এর লঙ্ঘন করে করোনায় আক্রান্ত পরীক্ষার্থীদের পরীক্ষার হলে আসতে বাধ্য করছে।

হাসনাইন তারন আরও বলেন, ১৮ দফার ‘ত’ নং দফায় সশরীরে উপস্থিত হতে হয় এমন পাবলিক পরীক্ষার ক্ষেত্রে যথাযথ স্বাস্থ্যবিধি নিশ্চিত করতে হবে বলা হয়েছে। তবে এত বড় পাবলিক পরীক্ষায় সেটি কোনো ভাবেই সম্ভব হবে না। কেননা বিসিএস পরীক্ষাতেও স্বাস্থ্যবিধি মানার কথা বলা হয়েছিল। তবে সেটি উপেক্ষিত হয়েছে। এই অবস্থায় ভর্তি পরীক্ষা পেছানোর জোর দাবি জানাচ্ছি। আশা করছি মাননীয় প্রধানমন্ত্রী এই বিষয়ে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেবেন।

প্রসঙ্গত, গত ৮ ফেব্রুয়ারি ২০২০-২১ শিক্ষাবর্ষে এমবিবিএস ও বিডিএস কোর্সে ভর্তি বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করে স্বাস্থ্য শিক্ষা অধিদপ্তর। প্রকাশিত বিজ্ঞপ্তি অনুযায়ী আগামী ২ এপ্রিল এমবিবিএস ও ৩০ এপ্রিল বিডিএস কোর্সের ভর্তি পরীক্ষা নেয়ার কথা রয়েছে

আপনার মতামত দিন
এই বিভাগের আরও খবর

সিলেটের সর্বশেষ
© All rights reserved 2020 © newspointsylhet