1. [email protected] : Joyanta Goswami : Joyanta Goswami
  2. [email protected] : Developer :
  3. [email protected] : News Point : News Point
রবিবার, ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০৬:৫১ পূর্বাহ্ন

নিউজ পয়েন্ট সিলেট

শুক্রবার, ৩০ এপ্রিল, ২০২১

বাংলাদেশে ২৭ দিনেই না ফেরার দেশে ২১ চিকিৎসক


করোনা মহামারিতে বিপর্যস্ত পুরো বিশ্ব। বাংলাদেশেও থেমে নেই এর সংক্রমণ। সাধারণ মানুষের পাশাপাশি ভাইরাসটিতে আক্রান্ত হচ্ছে চিকিৎসা সেবায় নিয়োজিত চিকিৎসক, নার্স  ও স্বাস্থ্যকর্মীরাও। ভাইরাসটিতে সংক্রমিত হয়ে দেশে এ পর্যন্ত ১৫২ জন চিকিৎসকের মৃত্যু হয়েছে। এর মধ্যে চলতি এপ্রিল মাসের প্রথম ২৭ দিনে মারা গেছেন ২১ জন চিকিৎসক। যা এ বছরের মধ্যে সর্বোচ্চ।

বাংলাদেশ মেডিকেল অ্যাসোসিয়েশন (বিএমএ) এর তথ্য অনুযায়ী, গত বছরের ৮ মার্চ দেশে প্রথম করোনা রোগী শনাক্ত হয়। এরপর গত বছরের ১৫ এপ্রিল দেশে করোনায় আক্রান্ত হয়ে মারা যান সিলেট এমএজি ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের মেডিসিন বিভাগের সহকারী অধ্যাপক ডা. মো. মঈন উদ্দিন। তিনি দেশে করোনায় আক্রান্ত হয়ে মারা যাওয়া প্রথম চিকিৎসক। পরে জুনে সংক্রমণে মারা গেছেন ৪৫ জন চিকিৎসক। এরপর সেপ্টেম্বরের পর থেকে চিকিৎসকদের মৃত্যুর হার কিছুটা কমে আসলেও চলতি বছরের এপ্রিলে আবার তা বেড়ে যায়।

বিএমএ জানিয়েছে, চলতি বছরের জানুয়ারিতে করোনায় আক্রান্ত হয়ে মারা যান চারজন চিকিৎসক। ফেব্রুয়ারিতে মারা যান একজন। মার্চে মারা যান তিনজন।

বিএমএ’র তথ্য অনুযায়ী, ভাইরাসটিতে আক্রান্ত হয়ে সবশেষ গত মঙ্গলবার (২৭ এপ্রিল) রাতে রাজধানীর বারডেম হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান বক্ষব্যাধি বিশেষজ্ঞ মো. আবদুল ওহাব তরফদার (৬৯)।

তিনি যশোরের একতা হাসপাতাল ও ডায়াগনস্টিক সেন্টার লিমিটেডের চেয়ারম্যান ছিলেন। সিলেট এম এ জি ওসমানী মেডিকেল কলেজের দশম ব্যাচের শিক্ষার্থী ছিলেন তিনি। এ নিয়ে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে দেশে ১৫২ জন চিকিৎসকের মৃত্যু হলো।

এছাড়া গত বছরের মার্চ থেকে বৃহস্পতিবার (২৯ এপ্রিল) পর্যন্ত দেশে করোনায় সংক্রমিত হয়েছেন ২ হাজার ৯১১ জন চিকিৎসক। এছাড়া একই সময়ে সংক্রমিত হয়েছেন ২ হাজার নার্স ও ৩ হাজার ২৯৬ জন স্বাস্থ্যকর্মী।

বিএমএ মহাসচিব ইহতেশামুল হক চৌধুরী জানান, চিকিৎসকদের করোনায় আক্রান্ত হওয়ার ঘটনা বাড়ার মূল কারণ হাসপাতালে রোগীর চাপ ও করোনার সক্রিয় ধরন। হাসপাতালগুলোতে যত বেশি রোগীর চাপ বাড়ছে, তত বেশি চিকিৎসক আক্রান্ত হচ্ছেন এবং মৃত্যুর সংখ্যাও বাড়ছে।

এছাড়া করোনাভাইরাসের ধরনগুলো বর্তমানে এত বেশি সক্রিয় যে তা খুব দ্রুত ফুসফুসকে সংক্রমিত করছে। এতে সাধারণ মানুষের পাশাপাশি চিকিৎসকদের মৃত্যুও বাড়ছে বলেও জানান তিনি।

আপনার মতামত দিন
এই বিভাগের আরও খবর

সিলেটের সর্বশেষ
© All rights reserved 2020 © newspointsylhet